ঈদে সীমিত পরিসরে চলবে ট্রেন

রোজার ঈদের মতো কোরবানির ঈদেও সীমিত পরিসরে চলাচল করবে ট্রেন। থাকছে না অগ্রিম টিকিটের ব্যবস্থা। পাওয়া যাবে শুধু অনলাইনে। তবে, স্বাস্থ্যবিধি মেনে যাত্রীবাহী লঞ্চ চলবে স্বাভাবিক নিয়মে। কর্তৃপক্ষ বলছে, ট্রেন ও লঞ্চে যাত্রী পরিবহনের ক্ষেত্রে স্বাস্থ্যবিধি কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রণ করা হবে।


সাধারণ ছুটি তুলে নেয়ার পর সীমিত পরিসরে সারা দেশে গণপরিবহন চলাচল করছে। রেলওয়ে ১৭ জোড়া ট্রেন চালাচ্ছে। তবে, ঈদ উপলক্ষ্যে বাড়ছে না ট্রেনের সংখ্যা। থাকছে না অগ্রিম টিকিট। সব টিকিটই বিক্রি হবে অনলাইনে। টিকিট ছাড়া ঢুকতে দেয়া হবে না প্ল্যাটফর্মে।
রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন জানান, এবারের ঈদে সীমিত পরিসরে চলাচল করবে ট্রেন। অগ্রীম টিকিটের কোনো ব্যবস্থা থাকবে না। তবে যাত্রী পরিবহনের ক্ষেত্রে কঠোরভাবে স্বাস্থ্যবিধি নিয়ন্ত্রণ করা হবে।
বিআইডব্লিউটিএর যুগ্ম পরিচালক আরিফ উদ্দিন জানান, স্বাস্থ্যবিধি মেনে স্বাভাবিক নিয়মে চলবে যাত্রীবাহী লঞ্চ। অনুমোদিত ভাড়ার চেয়ে বেশি টানা আদায় বা মাঝনদী থেকে নৌকায় করে যাত্রী তোলার মতো অনিয়মনের বিরুদ্ধে কঠোর শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেবে বিআইডব্লিউটিএ।
অধ্যাপক ও পরিবহন বিশেষজ্ঞ শামসুল হক জানান, গণপরিবহনের ক্ষেত্রে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা সম্ভব নয়। এক্ষেত্রে আগাম প্রস্তুতির ওপর জোর দেয়া দরকার।

গণপরিবহন চললেও সরকারি, বেসরকারি ও স্বায়ত্ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ঈদের ছুটিতে কর্মস্থল ত্যাগ না করার নির্দেশনা দিয়েছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন